Bleeding during pregnancy in Bengali – গর্ভাবস্থায় রক্তপাত

আপনার গর্ভাবস্থার সময় রক্তপাত হলে তা যথেষ্ট দুশ্চিন্তা দেয় আপনাকে। রক্ত মানে শিশু নষ্ট হয়ে যাওয়া না। গর্ভাবস্থার প্রথম তিনমাস রক্তপাত খুবই স্বাভাবিক এবং তাতে বিপদের কিছু নেই। গবেষণার দ্বারা জানা গেছে ২৫% মহিলারই গর্ভাবস্থার প্রথম তিন মাস রক্তপাত হয়েছে যার মধ্যে কিছু ব্যতিক্রমী হলো প্রচুর পরিমানে রক্তপাত। এই ধরণের রক্তপাত মাত্র তিন দিনই বা তার কম স্থায়ী থাকে। কোনো কোনো মহিলা আবার পুরো গর্ভাবস্থায় সবসময় রক্তপাতের সাক্ষী হন।

আপনার গর্ভবস্থায় রক্তপাতের কারণ (What are the causes of while you are pregnant?)

ডিম্বক রোপন (Egg implantation)

আপনার ডিম্বক যখন প্রস্ফুটিত হয় এবং তা পরিণত হয় আপনার জরায়ু থেকে লাল দাগ পরে যায়। অনেক মহিলা বিস্মিত হয়ে যান যে গর্ভাবস্থায় কি করে তাদের মাসিক হচ্ছে?

জরায়ু থেকে রক্তপাত (Breakthrough bleeding)

এরপ্রধান কারণ হলো বিভিন্ন হরমোন যা আপনার গর্ভাবস্থার সময় মাসিককে অচল করে দেয়, তারা যদি সঠিক কার্য না করে বা তাদের অস্বাভাবিক আচরণে তা ঘটে থাকে। এই জরায়ুর রক্তপাত আপনার শিশু বা আপনার শরীরের জন্য কোনো ক্ষতিকর নয় কারণ ওভারি থেকে প্ল্যাকটেনা উৎপন্ন হয় যা রক্তপাত বন্ধ করে। আপনার স্বাভাবিক মাসিকের সময়ে কোনো আঘাত লাগা বা চির ধরার কারণে রক্তপাত সাথে এই রক্তপাতের কোনো গরমিল নেই। তাই অনেক মহিলা তার প্রথম তিনমাস গর্ভাবস্থার কোনো অনুভূতি পান না আর এটিকে সাধারণ মাসিক হিসাবে ভাবেন।

যৌনমিলনের জন্য রক্তপাত (Sex causes bleeding)

আপনি গর্ভাবস্থায় থাকাকালীন যৌনমিলন করলে এটি ঘটতে পারে যা আপনার গর্ভে থাকা শিশুটির জন্য কোনো ক্ষতিকর না। আপনার যোনিদেশ আরো মসৃন হওয়ার জন্য ও অতিরিক্ত রক্ত পাচারের জন্য এটি ঘটে থাকে। আপনার এবিষয়ে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত যে এইসময় যৌনমিলন বন্ধ করা উচিত কিনা। সাধারণত, গর্ভাবস্থায় যৌনমিলন কোনো ক্ষতির কারণ নয় কিন্তু আপনার যদি কোনো শারীরিক অসুস্থতার বা শিশু নষ্টর অতীত থেকে থাকে তাহলে ডাক্তাররা আপনাকে তা করতে নিষেধ করতে পারেন।

বাহ্যিক অন্তঃসত্ত্বা (Ectopic pregnancy)

কোনো টিউব বা আপনার জরায়ুর বাইরে যদি ডিম্বক নিষ্কাশন করা হয় তাহলে তাকে বাহ্যিক অন্তঃসত্ত্বা বলে। এর অনেক লক্ষ্য দেখা যায় যেমন তলপেটের নিচের দিকে চির ধরা, মাথা ধরা। এই যন্ত্রনা আপনার হটাৎ করে চলে যাবে আবার তা কিছু ঘন্টা ফিরে আসবে ও আপনাকে অসুস্থ করে তুলবে। এটি খুব জটিল ব্যাপার কারণ তা আপনার ফ্যালোপিয়ান টিউবকে নষ্ট করে দিতে পারে ও রক্তপাত ঘটাবে যা আপনার জন্য যথেষ্ট সংকটপুর ও আপনার চিকিৎসার প্রয়োজন। আপনার গর্ভাবস্থায় এই টিউবটিকে আপনার শরীর থেকে বাদ দিতে হবে। এই সমস্যায় আপনাকে বেশি চিন্তিত হতে হবে না কারণ এটি ভবিষ্যতে আপনার গর্ভাবস্থায় প্রভাব ফেলতে পারে।

প্ল্যাকটিনার অস্বাভাবিক অবস্থান (Abnormally placed placenta)

আপনার জরায়ুতে প্ল্যাকটিনার মাত্রা কমে গেলে তাকে প্ল্যাকটিনার অস্বাভাবিক অবস্থান বলা হয়ে থাকে। আপনার জরায়ুর গলদেশে প্ল্যাকটিনা কখনো কখনো জমে যায় তখন তাকে প্ল্যাকটিনা প্রাভিয়া বলে যা গর্ভাবস্থায় খুব ব্যতিক্রম ঘটনা। প্ল্যাকটিনা প্রাভিয়ার জন্য আপনার দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় রক্তপাত ঘটায়। এইসময় ঘনঘন উল্টাসনোগ্রাফির দরকার যা ডাক্তারকে আপনার চিকিৎসার জন্য সাহায্য করে। আপনার শিশুর নিরাপত্তার জন্য আপনার এইসময় পূর্ণ বিশ্রামের প্রয়োজন।

প্ল্যাকটিনার ছেদন (Placental abruption)

আপনার জরায়ু থেকে প্ল্যাকটিনার বিচ্ছিন্ন হওয়াটাকে প্ল্যাকটিনার ছেদন বলে। এটা গর্ভাবস্থায় খুব ব্যতিক্রমী ঘটনা।

প্রচুর রক্তপাত ও যন্ত্রনা ও অন্যান্য যখন আছে যার দ্বারা এটি নির্ধারণ করা যায়। এইসময় রক্ত আপনার জরায়ুতে শক্ত হয়ে লেগে থাকে যার জন্য প্রচন্ড যন্ত্রনা হয়। ধূমপান, কিডনির রোগ, রক্তচাপ এগুলি হলো প্রধান কারণ যা আপনার গর্ভাবস্থায় অনেক বিপদের কারণ হতে পারে। এর জন্য আপনার সত্ত্বর চিকিৎসার প্রয়োজন।

জরায়ুর টিউমার (The fibroids of the uterine)

আপনাকে প্রথমে জানতে হবে জরায়ুর টিউমার আসলে কি এবং এটি আপনার জরায়ুর অন্তপ্রাচীর ও বহিঃপ্রাচীর উভয় জায়গায় দেখা যায়। এটি কখনো কখনো সম্যসা সৃষ্টি করে কখনো আবার তা করে না। এটি জরায়ুর অবস্থানের উপর নির্ভরশীল যা কখনো আপনার প্রচুর রক্তপাত, শিশু নষ্ট হয়ে যাওয়ার কারণ হতে পারে। যদিও কখনো তা সমস্যার সৃষ্টি করে না কিন্তু তাও এর জন্য আপনাকে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

Subscribe to Blog via Email

গর্ভস্রাব (Miscarriage)

বেশিরভাগ গর্ভস্রাব হয় গর্ভাবস্থার প্রথম তিন মাস যখন একটি মহিলা উপলব্ধি করেন না আসলে তিনি গর্ভবতী। প্রথম তিনমাসে গর্ভস্রাব-এর কিছু বিশেষ কারণ আছে।

জরায়ুর ক্ষতি: যখন একটি মহিলার শরীর যথেষ্ট সাবলীল নয় শিশু ধরণের জন্য অথবা গর্ভাবস্থার কোনো যত্ন নেন না তক্ষন গর্ভস্রাব হয়। আপনাকে আপনার প্রথম ত্রৈমাসিকের মধ্যে নিশ্চিত করতেই হবে আপনি গর্ভবতী কিনা।

গর্ভস্রাবর অনেক লক্ষ্যং আছে যার মধ্যে রক্তপাত অন্যতম। তাছাড়া পিঠে ব্যাথা, তলপেটে ব্যাথা, শরীরের মোচড় মারা গর্ভস্রাবের অন্যতম কারণ।